কিভাবে রান্নাঘরের যাবতীয় ফিটিংস নির্বাচন করবেন?

 

রান্নাঘরের সাজসজ্জার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো এর ফিটিংস যা একটি রান্নাঘরকে বিভিন্ন কাজের উপযোগী করে তোলে। পাত্র, বাসন-কোসন, ছুড়ি-কাঁটা চামচ এবং একই সাথে ওভেন, মিক্সার, চুলা, কুকার ইত্যাদি রাখার স্থান পাওয়া যায় রান্নাঘরকে সাজানো মাধ্যমে। তাই, এপার্টমেন্ট এর রান্নাঘরের জন্য প্রয়োজনীয় সাজ-সরঞ্জাম বেছে নেওয়ার সময় কৌশলী হওয়া উচিত।

রান্নাঘর এর ফিটিংসের ধরন

রান্নাঘর ফিটিংস নানান রকম ব্যবহারিক জিনিসের সমন্বয়ে গঠিত যেমন হতে পারে যেমন কেবিনেট, সিঙ্ক, ট্যাপ, ফ্লোর বা দেয়ালের টাইলস, ঝুলন্ত তাক, সেল্ফ, ড্রয়ারের বা দরজার হাতল ইত্যাদি।

রান্নাঘরের মেঝে এবং দেয়ালের জন্য সঠিক টাইলস নির্বাচন

রান্নাঘরের মেঝের জন্য এমন রং এর টাইলস নির্বাচন করা উচিত যা উপযোগী এবং দেখতেও মার্জিত। হতে পারে সেটা হোমোজিন,পরসেলিনের অথবা সিরামিকের তৈরি। অনেকে কাঠের মেঝেও করে থাকে কিন্তু টাইলস ব্যবহার রান্নাঘরের পরিচর্যা এবং পরিষ্কার পরচ্ছন্নতার জন্য মানানসই এবং অবশ্যই টেকশই। তবে রান্নাঘরের টাইলসের রং যতো গাঢ় হবে বিভিন্ন ব্যবহারের জন্য ততো উপযোগী হবে। আর দেয়ালের টাইলসের জন্য অবশ্যই মেঝের টাইলসের রং এবং দেয়ালের উচ্চতার সাথে মিল করে নির্বাচন করতে হবে।

রান্নাঘরের তাক নির্বাচন

রান্নাঘরের কেবিনেট বা তাক আধুনিক রান্নাঘরের ফ্যাশন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই দারুন ডিজাইনের রঙিন তাকগুলো শুধু রান্নাঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিই করে না বরং রান্নাঘরের যাবতীয় জিনিসপত্র রাখার জন্য অসাধারন এক সমাধান হিসেবেও কাজ করে। রান্নাঘরের তাক সাধারনত বার্মা থেকে আনা সেগুন কাঠ, চেরি কাঠ অথবা পাতলা বোর্ড দিয়ে তৈরি করা হয়। বর্তমানে স্টেইনলেস স্টিলও ব্যবহার করা হয়। তবে কেবিনেট না বানিয়ে রান্নাঘরের জন্য রেডিমেট কেবিনেট কিনেও লাগিয়ে নেওয়া যায়। আবার রান্নাঘর নতুন করে না বানিয়ে কেবিনেটের কিছু কিছু জিনিসপত্র বদলিয়ে নতুন একটি চেহারা দিয়ে দেওয়া যায়। যেমন কাঠের হাতল বদলিয়ে সেখানে বাজেট এবং রুচী অনুযায়ী ব্রোঞ্জ বা স্টিল ব্যবহার করেও নতুনত্ব আনা যেতে পারে।

রান্নাঘরের সিঙ্ক নির্বাচন

রান্নাঘরে সিঙ্ক বসানোর জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী স্থান নির্বাচন করা জরুরী। বিভিন্ন সাইজের সিঙ্ক বাজারে পাওয়া যায়, যেমন ডাবল অথবা সিঙ্গেল। রান্নাঘরের স্থান অনুযায়ী সেটা নির্ধারণ করা বুদ্ধিমানের কাজ। স্টেইনলেস স্টিলই রান্নাঘরের সিঙ্ক এর জন্য জনপ্রিয় তবে ঐতিহ্য ধরে রাখতে অনেকে কাস্ট আয়রনের সিঙ্কও ব্যবহার করে থাকেন।

রান্নাঘর কাউন্টারের উপরের অংশ নির্বাচন

রান্নাঘরের কাউন্টারের উপরের অংশ বলতে মুলত ওই স্থানটিকে বোঝায় যেখানে রান্না, সবজি কাটা ও গোছানোর কাজ করা হয়। এটি মুলত অন্যান্য জিনিসগুলো থেকে রান্নার অংশকে আলাদা করে রাখে। ইদানিং কাউন্টারের জন্য গ্রানাইট ব্যবহার করা হচ্ছে। হালকা গাড় যেকোন রং এতে ব্যবহার করা যেতে পারে। বাজারে নানা ধরনের ডিজাইন, রং এবং দামের গ্রানাইট পাওয়া যায়, রান্নাঘরকে অনেক বেশি সুন্দর করতে চাইলে উন্নত গ্রানাইট ব্যবহার করতে পারেন।

রান্নাঘরে আচ্ছাদন লাগানো

বাংলদেশের বেশিরভাগ এপার্টমেন্টেই রান্নাঘরে আচ্ছাদন নেই। তবে অনেকেই তদের পছন্দ ও ইচ্ছে অনুযায়ী আচ্ছাদন লাগিয়ে নিচ্ছেন। এটা রান্নাঘরকে পরিষ্কার,ধোঁয়াহীন রাখে এবং অত্যাধিক গরম হওয়া থেকে পুরো এপার্টমেন্টকে রক্ষা করে। বিভিন্ন সাইজের আচ্ছাদন পাওয়া যা পছন্দ মত লাগিয়ে নিতে পারন।

আপনি আপনার রান্নাঘরের ইন্টেরিয়র ডিজাইনের জন্য বিটিআই ইন্টেরিয়র সল্যুশনের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।