Simple Changes for an Environment Friendly Home

A home is the place which you never want to leave and always want to come back to. For a house to feel like home, one needs to keep in mind many things including interior décor, design, furniture etc. A home should not only give you shelter, but also take care of your well being as well as your surroundings, which is why you should strive to keep the accent of nature in your home and make it environment- friendly. Here are some simple tips to make your home environment-friendly:

Incorporate greenery

It is very rare to find people who are not swayed by the soothing greenery. Having shades of greenery will not only make your home environment-friendly, but also keep you fresh minded and uplift the aesthetics of your interior décor. You can choose any kind of plants, from potted plants to bulbs to hanging pots to add greenery to your home. Plants are known to be air cleanser, by removing pollutants from the air. They also provide you with natural ventilation.

Conserve water

Everyone these days are well informed about the scarcity of water in various parts of the world, which is why we should strive to conserve water in our homes. Apart from practicing habits that minimize water usage in your home, you can also harvest rain water and conserve water this way. Many developers these days incorporate rain water harvesting to store water which can be used for non consumption purposes. If your home lacks this feature, you can make your own simply by placing a bucket on your rooftop to collect rainwater during the rainy season and use it for non drinking purposes.

Use energy efficient light bulbs

Many homes these days are shifting from traditional light bulbs to energy efficient light bulbs- like the CFL light bulbs which have been a common lighting feature in many homes for several years. These light bulbs reduce your energy consumption and carbon footprint, which is defined as the measure of the environmental impact of a particular individual or organization’s lifestyle or operation, measured in units of carbon dioxide. This way not only your electricity bill will be reduced, but you can have an environment-friendly home.

Another latest trend in lighting world, are the LED bulbs which are superior to the CFL bulbs. They are much more long lasting as well as better energy efficient. However, they are still a bit on the costly side, but if you take into account the longevity of these bulbs, it is win-win to have them installed in your apartment features.

By following these simple tips you can easily have an environment-friendly apartment, which is healthier to live in. Also, it will fill you with a sense of good feeling, since you have taken a step towards the betterment of the future generations including your children or grandchildren. So take the first step now.

********************************************************************

একটি পরিবেশ বান্ধব বাসস্থানের জন্য সহজ কিছু পরিবর্তন

লেখক: তাসনিয়া তাজিন                                                                   অনুবাদক: আহমেদ নাজিয়া

বাসস্থান এমন একটি জায়গা যা আপনি কখনই ছাড়তে চান না এবং সেখানে সবসময় ফিরে আসতে চান। একটি বাড়িকে বাসস্থানের মত মনে করার জন্য, অভ্যন্তরীন সাজসজ্জা, নকশা, আসবাবপত্র ইত্যাদি সহ অনেক কিছু মনে রাখা দরকার। বাসস্থান আপনাকে শুধু আশ্রয়ই দেয়না, বরং আপনাকে, সেইসাথে আপনার আশেপাশের সবকিছুকে ভাল রাখে; যে কারনে আপনার বাড়িতে প্রাকৃতিক জিনিসগুলো রাখতে এবং বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ করতে আপ্রাণ চেষ্টা করা উচিত। আপনার বাসস্থানকে পরিবেশ বান্ধব বানানোর কিছু সহজ টিপস দেয়া হলো:

শ্যামলিমা যোগ করুন

শ্যামলিমা দ্বারা প্রভাবিত হবেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুব বিরল। শ্যামলিমা ছায়া আপনার বাড়িকে শুধুমাত্র পরিবেশ বান্ধবই করে না, আপনার মনকে সতেজও রাখে এবং আপনার বাড়ির অভ্যন্তরীন সাজসজ্জায় নান্দনিকতা বৃদ্ধি করে। আপনি আপনার বাড়িতে শ্যামলিমা যোগ করার জন্য, যে কোন ধরনের ছোট গাছপালা, ছোট পাত্র থেকে শুরু করে ঝুলানো পাত্র নির্বাচন করতে পারেন। গাছপালা বায়ু শুদ্ধিকারক হিসেবে পরিচিত কারন এটি বায়ু থেকে দূষণকারী পদার্থ দূর করে। তারা আপনাকে প্রাকৃতিক বায়ুচলাচলও প্রদান করে।

পানি সংরক্ষণ

বিশ্বের বিভিন্ন অংশে পানির অভাব সম্পর্কে বর্তমানে সবাই অবহিত, যার জন্য আমাদের বাড়িতে পানি সংরক্ষণ করার আপ্রাণ চেষ্টা করা উচিত। আপনার বাড়িতে পানির ব্যবহার কমানোর অভ্যাস করা ছাড়াও, আপনি বৃষ্টির পানি সংগ্রহ করে তা জমাতে পারেন। অনেক ডেভেলপারই আজকাল পানি সঞ্চয় করতে বৃষ্টির পানি সংগ্রহক স্থাপন করে দেয় যেখানে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের জন্য সংরক্ষিত থাকে। আপনার বাড়িতে যদি এই বৈশিষ্ট্য না থাকে, তাহলে আপনি শুধু বর্ষাকালে আপনার ছাদে পাত্র রেখে বৃষ্টির পানি সংগ্রহ করতে পারেন এবং পান করা ছাড়া অন্যান্য কাজে এটি ব্যবহার করতে পারেন।

বিদ্যুত সাশ্রয়ী বাল্ব ব্যবহার করুন

আজকাল অনেক বাড়ীঘর ঐতিহ্যগত লাইট বাল্বের পরিবর্তে কার্যকর শক্তি সম্পন্ন লাইট বাল্ব ব্যবহার করছে- যেমন সিএফএল লাইট বাল্ব যা কয়েক বছর ধরেই অনেক বাড়িতে একটি সাধারণ আলোক মাধ্যম হয়ে রয়েছে। এই লাইট বাল্ব শক্তির খরচ কমায় এবং কার্বন ফুটপ্রিন্ট যা একটি নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের জীবনধারা বা কাজের পরিবেশগত প্রভাব, কার্বন-ডাই-অক্সাইডের এককে পরিমাপ করে থাকে। এভাবে না শুধু আপনার বিদ্যুৎ বিল কমবে, বরং আপনি একটি পরিবেশ বান্ধব বাড়িতেও থাকতে পারবেন। আলোর পৃথিবীতে আরেকটি সাম্প্রতিক চল হচ্ছে, এলইডি বাল্ব যা সিএফএল বাল্ব এর চেয়ে উত্তম। এগুলো অনেক বেশি দীর্ঘস্থায়ী, সেইসাথে বিদ্যুত সাশ্রয়ী। তবে, এগুলো একটু ব্যয়বহুল, কিন্তু যদি আপনি স্থায়িত্ব বিচার করেন, তাহলে এই বাল্ব আপনার অ্যাপার্টমেন্টে ব্যবহার করলে তা লাভজনক হবে।  এই সহজ টিপসগুলো অনুসরণ করে আপনি সহজেই একটি পরিবেশ বান্ধব অ্যাপার্টমেন্ট পাবেন, যা বসবাসের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত। এছাড়াও, এটা আপনার অনুভূতিকে পূর্ণ করবে, যেহেতু আপনি সন্তান এবং নাতি-নাতনীসহ আপনার ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কল্যাণে জন্য একটি পদক্ষেপ নিয়েছেন। তাই প্রথম পদক্ষেপটি এখনই গ্রহণ করুন।