14 Things to Consider when Customizing your Apartment

When buying an apartment, a lot of factors play into the final purchase decision and one of these is checking out the internal design, apartment layout and specifications to ensure that the home you are buying is the perfect home for you. There are few things to consider when customizing your apartment. A developer company also tries to incorporate the best internal design layout, and standard specifications in particular locality on the basis of market survey. However, personal preferences always vary and you may find it very hard to find the ideal home. In that case you can choose to carry out optional/ modification work which is basically customization of your apartment to make your dream apartment come true. Here are some pointers to help you take the right decision while considering customization of your apartment.

things-to-consider-when-customizing-your-apartment-1

Make a list of requirements

Discuss among your family and take opinions of everyone since you won’t be the only one living in your home. Find out everyone’s requirements and then make a list of required optional and modification work to be done to customize your apartment the way you want.

Discuss with the real estate developer

After making the list, it is also important to have a one-on-one discussion with the real estate developer from whom you are buying the apartment. They can provide you with additional costing and charges and feasibility of the changes you require as some changes may not be possible. They will also guide you in finding out which changes will make the home more suited for your lifestyle.

Keep bathroom and kitchen location same

When customizing your apartment, it is recommended not to alter bathroom and kitchen location in the floor plan as due to change in the position, sanitary ducting will not be in same alignment. This can cause leakage in your apartment and the immediate apartment below your floor which is not at all desirable.

Consider bigger size bedrooms

apartment customization idea

Sometimes you may think you want a bigger space for living or dining space since those are the rooms where you entertain guests mostly. However, do not forget a bedroom is one of the essential rooms in your apartment and where you spend every night to sleep. So essentially it should also be the most comfortable you. It is recommended to keep the bedroom size as it is or make it bigger if possible.

Install quality bathroom fittings

Apartment customization idea

Another important room in your apartment which is often neglected is the bathroom. You should ensure bathroom fittings such as CP fittings, basin, shower, commode. etc are from quality brands if the Developer does not ensure such in the specifications. Otherwise, replacing bathroom fittings later on is a costly and cumbersome process. Another point to note is to avoid having bathtubs especially in small bathrooms as they take up a lot of space and are not so heavily used.

Consider size and color of floor tiles

Your apartment floor tiles can make or break the aesthetics of your entire apartment so care has to be taken to ensure the floor tiles is aesthetically pleasant, easy to maintain, as well as of standard quality. At present, most of the Developers provide 24″x24″ floor tiles. If your Developer’s specification is lower than this, you can take 24″x24″ or 36″x36″ floor tiles as optional. Try to get light colored floor tiles to make your apartment look brighter. Also avoid using marble since it is a natural product. Crack development, color mismatch are very common phenomena in marble usage.


Have a bigger kitchen

Apartment customization idea

The kitchen is indisputably a highly functional place in your apartment and space optimization is crucial. If your apartment kitchen comes with an attached maid’s bedroom which you feel will be of no use to you, you can talk with the Developer Company to replace that space with bigger kitchen for your convenience.

Consider having kitchen hood provision

A kitchen hood is an important appliance for keeping your kitchen neat and clean, besides having other benefits like keeping kitchen air clean and removing excess heat from the kitchen as well as providing comfort in cooking. So if kitchen hood is not included in your Developer’s specifications you can have provision for kitchen hood through customization.

Think before selecting paint color

You may have your personal choice of color when painting your apartment for customizing, but sometimes you may be dismayed after the paint job is done in which case you are either stuck with it or have to repaint which is not only costly but also time consuming. So think hard before choosing the paint color. If your Developer uses white on ceiling and white and grey 4:1 on wall, then it is better to keep it as it is. Also try to steer clear from dark colors as they can ruin the overall ambience of your apartment. Light colors also make the apartment look bigger and brighter.

Provision of hot and cold water line

As per standard specifications, Developer company might not have hot and cold water line provision in your apartment. Check the Developer’s specifications and make additional hot and cold water line and electric geyser provision as per your requirement. Please note that government has given embargo on central gas geyser and there is no possibility of withdrawal of this embargo in near future. So you can keep electric geyser provision if you choose.

Consider your requirement of electric point and AC point

Find your requirement of electric power points, light points and AC points on the basis of your home appliance usage and other requirements. It is advisable to place this requirement to your Developer Company prior to paint job. Otherwise, huge dismantling work has to be done which incurs additional cost and increases the possibility of damp walls appearing in that particular area.

Add a feature wall or wall tiles

Apartment customization idea

Sometimes, feature wall or wall tiles in particular portions of the room are used to enhance aesthetics of the room. You can choose this option; however, take note not to go overboard with this feature as too many may ruin the aesthetics and also cost you more. You can use feature tiles or rustic tiles in one wall of the living room to make it look luxurious.

Add a wash area in the dining room

You might desire to have a basin in your dining area. You can customize it by adding a basin behind a tiled backdrop to make the dining space interesting.

Consider additional storage space

Apartment customization idea

**********************************************************************

   নিজের মতো করে এপার্টমেন্ট সাজানোর সময় যে ১৪ টি বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে

লেখক: মোহাম্মাদ শামসুল আমিন                           অনুবাদক: আহমেদ নাজিয়া

একটা এপার্টমেন্ট কেনার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অনেক কিছু মাথায় আসে যেমন ইন্টেরিয়র ডিজাইন, লে আউট এবং অন্যান্য আরো অনেক কিছু যেগুলো একটি এপার্টমেন্টকে পরিপূর্ণ করে তোলে। প্রতিটি ডেভেলপার কোম্পানীও মার্কেট সার্ভের উপর ভিত্তি করে সেই অনুযায়ী তাদের সাধ্যমত বেস্ট লে আউট ডিজাইন করার চেষ্টা করে। যেহেতু প্রতিটি মানুষের পছন্দ ভিন্ন রকম তাই আদর্শ এপার্টমেন্ট খুজে পাওয়াটাও খুব কঠিন। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার এপার্টমেন্টের ডিজাইনে কিছু চেঞ্জ এনে কাস্টমাইজড করে নিজের মত করে তুলতে পারেন। এখানে কাস্টমাইজড এপার্টমেন্টের জন্য কিছু টিপস নিয়ে আলোচনা করা হলো যেটা আপনাকে আপনার এপার্টমেন্টকে নিজের মতো করে সাজাতে সাহায্য করবে।

চাহিদার একটা তালিকা তৈরি করা

আপনার এপার্টমেন্টে যাহেতু আপনার সাথে আপনার পরিবারের সবাই থাকবেন তাই তাদের চাহিদাকেও গুরুত্ব দিন। তাদের সাথে আলোচনা করে তাদের মতামত এবং নিজের চাহিদাকে গুরুত্ব দিয়ে এপার্টমেন্টের ডীজাইন মোডিফিকেশনের তালিকা করুন।

রিয়েল এস্টেট ডেভেলপারের সাথে আলোচনা

তালিকা প্রস্তুত হয়ে যাবার পর ডেভেলপারের সাথে সামনা সামনি বসে এই ব্যাপারে আলোচনা করা উচিৎ। তিনি হয়তো আপনাকে সে অনুযায়ী খরচ, চার্জ সম্পরকে জানাবেন এবং কি কি চেঞ্জ করা যাবে বা যাবে না সে বিষয়েও ধারনা দেবেন। আপনার বাড়িকে সুন্দর করতে আর কি কি জিনিস যোগ করা দরকার তাও তিনি জানিয়ে দিতে পারবেন।

বাথরুম এবং রান্নাঘরের পজিশন ঠিক রাখা

বাসার আসল আর্কিটেকচারাল ডিজাইন অনুযায়ী বাথরুম ও রান্নাঘর যে যে অবস্থানে থাকার কথা সেই অবস্থানেই রাখা উচিৎ কারন বাড়ির স্ট্রাকচার করবার সময়ে ফিটিংসগুলো ভিতর দিয়ে আগেই করা থাকে,সেক্ষত্রে পরবর্তীতে চেঞ্জ করলে ফাটল হয়ে নিচের ফ্লোরে পানি পড়বার সম্ভাবনা থাকে যেটা মোটেও কাম্য নয়।

বেড রুম বড় রাখা

আপনার লিভিং বা ডাইনিং রুমটা বড় করার কথা ভাবতে পারেন কারণ এই দুটো রুমই অতিথিদের আপ্যায়ন করার জন্য ব্যবহার করা হয়। নিজের শোবার ঘরটি যতটা সম্ভব আরামদায়ক করে ডীজাইন করতে হবে কারণ আপনার বেশিরভাগ সময় আপনি এই রুমেই কাটাবেন। তাই শোবার ঘরের ব্যাপারে পর্যাপ্ত লক্ষ্য রাখতে ভুলবেন না।

বাথরুম ফিটিংস গুলো ভালো মানের দেবার চেষ্টা করুন

যদিও অধিকাংশ সময় এপার্টমেন্টের বাথরুমের ডীজাইনের প্রতি আমরা কম লক্ষ্য রাখি কিন্তু বাথরুম একটি এপার্টমেন্টের  আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। ডেভেলপার যদি বাথরুমের বেসিন,কমোড শাওয়ার এগুলোর ব্র্যান্ড স্পেশিফিকেশন উল্লেখ না করে থাকে তবুও এই জিনিসগুলো অবশ্যই ভালো ব্র্যান্ডের কেনার চেষ্টা করুন কারন পরবর্তীতে এগুলো আবার চেঞ্জ করা খরচ ও ঝামেলা সাপেক্ষ। আর ছোট বাথরুমে বাথটব ইনস্টল না করাটাই ভালো কারন এটি অনেক বেশি যায়গা নেয় কিন্তু ব্যবহার কম হয়।

মেঝের টাইলসের কালার এবং সাইজ নির্বাচনে খেয়াল রাখুন

মেঝের টাইলস পুরো বাড়ির ইন্টেরিয়র সৌন্দর্য কে যেমন ফুটিয়ে তুলে আবার নষ্টও করে তাই মেঝের টাইলস নির্বাচনে আরো সতর্ক হোন যাতে মেঝের টাইলস দেখতেও সুন্দর হয়, পরিষ্কারও করা যায় এবং মানও ভালো হয়।এখন বেশিরভাগ ডেভেলপাররা ২৪”*২৪” টাইলস দিয়ে থাকে আর যদি আপনার ডেভেলপার এর চাইতেও ছোট টাইলস দিয়ে থাকে তবে আপনি ২৪”*২৪ অথবা ৩৬”*৩৬” টাইলস বিকল্প হিসেবে রাখতে পারেন। হালকা রঙের টাইলস ব্যবহার করুন কারন হালকা রঙ এর টাইলসের জন্যে এপার্টমেন্টকে উজ্জ্বল দেখায়।অবশ্যই মার্বেল ব্যবহার পরিহার করুন কারন মার্বেলে ক্রাক ডেভেলপের কাজ,কালার ম্যাচিং এগুলো অনেক ঝামেলার।

রান্নাঘরকে বড় করুন

রান্নাঘর নানা ধরনের কাজে সারাদিন ব্যবহার করা হয় তাই এটার সাইজ নির্বাচনে আরো সতর্ক হওয়া উচিৎ। যদি আপনার রান্নাঘরের সাথে কাজের লোকের শোবার ঘরের ডিজাইন থাকে এবং যদি আপনি সেটা অপ্রয়োজনীয় মনে করে থাকেন তবে আগেই ডেভেলপারের সাথে কথা বলুন এবং সেটা চেঞ্জ করে রান্নাঘরের যায়গাটা বড় করুন।

কিচেন হুডের ব্যবস্থা রাখুন

কিচেন হুড রান্নাঘরের খুব প্রয়োজনীয় একটি জিনিস যেটা রান্নাঘরের বাতাসকে সতেজ রাখার পাশাপাশি রান্নাঘরের বাড়তি তাপকে বের করে রান্নাঘরকে পরিবেশকে আরামদায়ক রাখতে সাহায্য করে।যদি ডেভেলপার কিচেন হুড তার পরিকল্পনাতে নাও রাখে তবুও আপনি নিজে অপশন হিসেবে রাখুন।

বাড়িতে রঙ করার আগে ভাবুন

এপার্টমেন্ট পেইন্ট করার সময় হয়তো আপনার নিজের রঙের পছন্দ থাকতে পারে কিন্তু রঙ করার পরে হয়তো আপনি সেটা নিয়ে খুশি হতে পারলেন না অথবা পরবর্তীতে পূনরায় পেইন্ট করা একদিকে যেমন খরচের ব্যাপার অন্যদিকে সময় সাপেক্ষ। তাই রঙ নির্বাচন করার আগে ভেবে নেয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যদি আপনার ডেভেলপার বাড়ির ছাদে সাদা রঙ ব্যবহার করে ঘরের বাকি অংশ সাদা, ধূসরের ৪:১ অনুপাতে দিতে চায় তাহলে তাকে দিতে দিন। গাড় রঙ বাদ দেয়ার চেষ্টা করুন কারন এতে ঘর অন্ধকার মনে হয়, হালকা রঙ দিন যাতে ঘর উজ্জ্বল ও বড় দেখায়।

গরম ঠান্ডা পানির ব্যবস্থা রাখা

স্বাধারণত স্ট্যান্ডার্ড স্পেশিফিকেশন হিসেবে ডেভেলপার কোম্পানী আপনার এপার্টমেন্টে গরম ও ঠান্ডা পানির ব্যবস্থা নাও রাখতে পারে। সেইক্ষেত্রে স্পেশিফিকেশন ভালো করে চেক করে, আপনি আলাদাভাবে গরম ও ঠান্ডা পানির লাইনের পাশাপাশি ইলেক্ট্রিক গিজার বসানোর পরিকল্পনা করতে পারেন। নোট রাখা যাতে পারে, আগামী কয়েকবছর সরকার ইলেক্ট্রিক গিজারের পারমিশন বজায় রাখবে।

প্রয়োজন অনুযায়ী ইলেক্ট্রিক লাইন এসির লাইন সেট করুন

রুমে কোন কোন এপ্লাইএন্স কোথায় কিভাবে ব্যবহার করবেন সে অনুযায়ী ইলেক্ট্রিক পাওয়ার পয়েন্ট,লাইট পয়েন্ট,এসি পয়েন্ট সেট করুন।তবে রঙ করার আগেই এই কাজ গুলো করুন কারণ পরবর্তীতে নষ্ট যায়গাগুলোকে ঠিক করার জন্য অনেক সময়, টাকা নষ্ট হতে পারে।

দেয়াল টাইলস বা ফিচার ওয়াল বা টাইলস ওয়াল

ফিচার ওয়াল বা টাইলস ব্যবহারে আপনার ঘরকে আরো সুন্দর করতে পারেন।তবে খেয়াল রাখুন বাড়ির সব দেওয়ালে না করে শুধু লিভিং রুমের একটা দেয়ালে করতে পারেন।কারন সব যায়গায় করলে দেখতেও ভালো লাগবে না,খরচও বেড়ে যাবে।

ডাইনিং রুমে ওয়াশ এরিয়া রাখুন

ডাইনিং এরিয়াতে একটি বেসিন যোগ করার পরিকল্পনা আপনার থাকতেই পারে। ডাইনিং এরিয়ার এক দেয়ালে টাইলস দিয়ে সামনে বেসিন বসালে আপনার বাড়িটির সৌন্দর্য আরো বেড়ে যাবে।

অতিরিক্ত যায়গা রাখা

যখন আপনি আপনার এপার্টমেন্ট এ বসবাস শুরু করবেন তখন এমন অনেকক জিনিস বের হবে যেগুলো রাখবার জন্য এক্সট্রা যায়গা দরকার হবে।সেক্ষত্রে ডেভেলপারের সাথে কথা বলে আগেই ওয়াল কেবিনেট বসিয়ে রাখতে পারেন।

সমস্ত কাসটোমাইজেশনের সাথে আপনার এপার্টমেন্ট এর দামও বেড়ে যাবে। আগেই অর্থ যোগানদাতার সাথে কথা বলে টাকা যোগাড় করে রাখা উচিৎ কারন যদি এপার্টমেন্ট কেনার জন্যে ১কোটি টাকা দরকার হয় তাহলে কাস্টোমাইজেশনে জন্য এক্সট্রা আরো ১০ লাখ বরাদ্দ রাখা উচিৎ সেক্ষেত্রে লোন এমাউন্ট ও বেড়ে ৭০% এ গিয়ে ৭৭ লাখ হবে।

যখন বিটিআই থেকে এপার্টমেন্ট কিনবেন তখন আমরা সাধ্যমত চেষ্টা করবো আপনার স্বপ্নের এপার্টমেন্টের মতো করেই আপনার এপার্টমেন্টটি সাজিয়ে দিতে।